ঢাকাবুধবার , ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইটি বিশ্ব
  3. আজকের ঢাকা
  4. আজকের রাশিফল
  5. আদর্শ সদর
  6. আমাদের পরিবার
  7. আর্ন্তজাতিক
  8. ইসলামী জীবন
  9. উদ্ভাবন
  10. করোনা
  11. কুমিল্লা
  12. কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
  13. কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন
  14. খুলনা
  15. খেলাধুলা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সিজদাকর আল্লাহর নৈকট্য অর্জন কর।

admin
জুলাই ৩০, ২০২১ ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আজকের আলোচকঃ

 

মাওলানা হাফেজ মোঃ নূর হোসেন,ফেনী।।

(পবিত্র জুমার খুতবা)
সিজদায় নত হও অশ্রু ছাড়
আল্লাহর স্মরণে হৃদয় গড়,,

(কুরআনের আয়াত সমূহ)
১) সূরা আলাক আয়াত ১৯
২) সূরা ইনশিকক আয়াত ২০,২১
৩) সূরা কলাম আয়াত ৪২-৪৪
৪) সূরা রহমান আয়াত ৬
৫) সূরা নাজম আয়াত ৬১,৬২
৬) সূরা সাজদা আয়াত ১৫
৭) সূরা হামীম সাজদা আয়াত ৪২
৮) সূরা রদ আয়াত ১৫
৯) সূরা নাহল আয়াত ৪৮-৪৯
১০) সূরা হিজর আয়াত ৯৮,৯৯
১১) সূরা হজ্জ আয়াত ২২
১২) সূরা ফুরকন আয়াত ৬০
১৩) সূরা আরাফ আয়াত ১১
১৪) সূরা বাকারা আয়াত ৩৪,৪৪,৪৫
তাফসীরে সহায়তা নেন, তাফসীরে জালালাইন, তাফসীরে ইবনে কাসীর, তাফসীরে তাফহীম
(প্রিয় হাবীবের প্রিয় উপদেশ)
১)আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত হয়েছে যে, রাসুলুল্লাহ (স.) বলেছেনঃ বান্দা স্বীয় রবের সর্বাধিক নিকটবর্তী তখনই হয়, যখন সে বান্দা সিজদায় অবনত থাকে। কাজেই তোমরা সিজদারত অবস্থায় খুব বেশি করে দোআ-প্রার্থনা করবে । তাতে তা কবুল হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। [মুসলিমঃ ৪৭৯, ৪৮২]

২)নবী করীম (স.) বলেছেন, ‘আমার যে কোন উম্মতকে কিয়ামতের দিন আমি চিনে নিতে পারব। সাহাবীগণ বললেন, এতসব সৃষ্টিকূলের মধ্যে আপনি তাদেরকে কিভাবে চিনবেন? তিনি বললেন, তুমি যদি কোন আস্তাবলে প্রবেশ কর যেখানে নিছক কালো ঘোড়ার মধ্যে এমনসব ঘোড়াও থাকে যেগুলোর হাত, পা ও মুখ ধবধবে সাদা, তবে কি তুমি উভয়ের মধ্যে পার্থক্য করতে পারবে না? সাহাবীগণ বললেন, হ্যাঁ পারব। তিনি বললেন, ঐ দিন সিজদার কারণে আমার উম্মতের চেহারা সাদা ধবধবে হবে, আর ওযুর কারণে হাত-পা উজ্জ্বল সাদা হবে’।
(মুসনাদে আহমাদ)
৩)আবু হুরায়রা (রাঃ) হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ (স.) বলেছেন, ‘আদম সন্তান যখন সিজদার আয়াত পাঠ করে, অতঃপর সিজদা করে, শয়তান তখন সরে গিয়ে কেঁদে কেঁদে বলে হায়! তাকে সিজদা করতে বলা হয়েছে, অতঃপর সে সিজদা করেছে, তার জন্য জান্নাত। আর আমাকে সিজদার আদেশ করা হয়েছে, অতঃপর আমি অবাধ্য হয়েছি। তাই আমার জন্য জাহান্নাম ধার্য হলো।(মুসলিম-১৩৩)

৪)আল-মুমতে’ ৪/১২৬, ফিকহুস সুন্নাহ আরবি ১/১৯৬) তিলাওয়াতের সিজদায় একাধিকবার পঠনীয় সুন্নতী দু’আ হল, سَجَدَ وَجْهِىَ لِلَّذِيْ خَلَقَهُ وَشَقَّ سَمْعَهُ وَبَصَرَهُ بِحَوْلِهِ وَقُوَّتِهِ অর্থাৎ, আমার মুখমণ্ডল তাঁর জন্য সিজদাবনত হল যিনি তাকে সৃষ্টি করেছেন এবং স্বীয় শক্তি ও ক্ষমতায় তার চক্ষু ও কর্ণকে উদগত করেছেন। (আহমদ ৬/৩০, আবু দাউদ, তিরমিযী, নাসায়ী।
৫) হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর রাঃ হতে বর্ণিত। রাসূল সাঃ বলেছেন যার আমানতদারী নেই, তার ঈমান নেই। যার পবিত্রতা নেই, তার নামায নেই। যার নামায নেই, তার দ্বীন নেই। গোটা শরীরের মধ্যে মাথার যে মর্যাদা, দ্বীন ইসলামের নামাযের সে মর্যাদা। আল মুজামুস সগীর।

 

 

(নৈকট্য অর্জন করার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস)
১) রাতের আঁধারে যারা সিজদাতে রয়
দুচোখের অশ্রুতে নদী যেন বয়ে,,,
২) সিজদা অর্থ নৈকট্য ও সান্নিধ্য অর্থাৎ পুরো শরীলের মধ্যে সবচেয়ে দামী ও সম্মানের অংশ হল মাথা যা সৃষ্টিকর্তার সামনে নুয়ে দেয়া,,,
৩) কুরআনে হাকীমের ভিতর ২ টি সূরাও আছে সিজদার এবং ১৪ টি যায়গায় সিজদার আয়াত ও আছে যা তেলাওয়াতে সিজদা,,,
৪) সিজদা দাও আল্লাহর নৈকট্য অর্জন কর কেনান সিজদা কারী বান্দা ও আল্লাহর মাঝে কোন পর্দা থাকেনা,,,
৫) সিজদা ছেড়ে করিওনা ভূল
সিজদা হল ইবাদাতের মূুল,,,,
৬) শয়তান একটা সিজদা না করার কারণে চির জাহান্নামে আর তুমি আমি দৈনিক ১৭ টি ফরজ সিজদা ত্যাগ করে জান্নাত কি ভাবে আশা করি,,,
৭) পৃথিবীতে শ্রেষ্ঠ ইবাদাত, শ্রেষ্ঠ আমল, এবং শ্রেষ্ঠ ব্যায়াম হল সিজদা,, আল্লাহু আকবার,,,
৮) সিজদা করলে মাথা সেলকোষ,নার্ফ গুলো,মস্তিষ্ক মেধা শক্তি সুস্থ থাকে এবং মেধা শক্তি বৃদ্ধি পায়,,,
৯) আকাশে আর জমীনে যতো আছে সবায় সিজদা নত হয় আছে ৭ আকাশ ৭ জমীন,,,
১০) পৃথিবীতে এমন কোন ইবাদাত নেই যে ইবাদাত আল্লাহ ও বান্দার মাঝে কোন পর্দা থাকেনা একমাত সিজদা কারী বান্দার মাঝে আর আল্লাহর মাঝে কোন পর্দা থাকেনা,,,,
১১) মায়ের গর্ভে যখন তোমার আমার শরীল গঠন তৈরি করে মাথার অংশ যখন বসায় তখন থেকে মায়ের গর্ভে সিজদা রত ছিলে এবং দুনিয়ায় আসার সময় মায়ের পেট থেকে তখনো সিজদা নত হয় দুনিয়া আসলাম সুবহানাল্লাহ,,,
১২) ইবলিস শয়তান জমীনে এমন কোন যায়গা নেই যেখানে সে সিজদা করে নাই যখন আল্লাহ পাক বললেন আদমকে সিজদা করতে তখন না করার পরিণাম জাহান্নাম একমাত্র অহংকার তার পতন,,,
১৩) আলী রাঃ বলেন ৬২৪ সালে বদর যুদ্ধের সময় রাসূল সাঃ সিজদায় রত ছিলেন যুদ্ধ শুরু শেষ বিজয় লাভ করলো তার পর মাথা তুলেলনা
একমাত্র সিজদায় দোয়া কবুল হয়,,,
১৪) সোয়ালক্ষ পয়গম্বরের মূল ইবাদাত ছিলো আল্লাহ পাকের পায় সিজদা করা,,,
১৫) রাসূল সাঃ ৬৩২ সালে মৃত্যুর সন্ধিখনে মদীনা মসজিদে সাহাবীদের নামাজ দেখে দু-চোখে অশ্রু ঝরে আয়েশা রাঃ বলেন ইয়া রাসূলাল্লাহ সাঃ আপনার চোখে পানি কেন? তখন রাসূল সাঃ বলেন হে আয়েশা এটা কোন দুঃখের কান্না নয় এটা হলো সুখের কান্না যে সিজদার জন্যে বদর,উহুদ, খন্দক শত সাহাবী জীবন দিল আমার দান্দাক মুবারক শহীদ এটা সে জামাত সে সিজদা
১৬) আলী রাঃ যুদ্ধের ময়দানে তীর নিক্ষেপ হয় সে তীর কেউ খুলতে পারেনা যখন নামাজে দাড়িয়ে যায় সিজদা রত হয় তখন তীর খুলে পেলল টেরও পায়নি কি মন নামাজে,,,
১৭) রাসূল সাঃ দুজন সাহাবী এক তাবুক পাহারার দায়িত্বে ছিলো হঠাৎ একজন ঘুমিয়ে যায় তখন আরেক জন নামাজে দাঁড়ায় সিজদা রত হয় হঠাৎ শুক্র এসে তীর নিক্ষেপ করে তাও নামাজ ছাড়ে নাই আল্লাহু আকবার,,,
১৮) আয়েশা রাঃ বলেন রাসূল সাঃ যখন সিজদা করতেন মনে হয় দুনিয়া থেকে চলেগেলেন সুবহানাল্লাহ,,,
১৯) সিজদা একমাত্র শুধু মাত্র আল্লাহ পাকের হক আর কোন ব্যক্তি মাজার সামনে নত হওয়া হারাম,,,
২০) কিয়ামতের যখন আল্লাহ বলবেন সিজদা কর তখন বেনামাজিরা সিজদা করতে পারবেনা তাদের কুমর লোহার মত শক্ত করে দেবে, যারা দুনিয়াতে সুস্থ থাকার পরে নামাজ পড়েনি কবরে গিয়ে সিজদা করেছে,,
২১)আল্লাহ পাকের তরফ থেকে বান্দ জন্য উপহার ছিলো ৫ ওয়াক্ত নামাজ ৬২০ মিরাজের রাতে,,,,
২২) ১ ওয়াক্ত নামাজ ত্যাগ করা নয় তার সাথে সাথে ১৩ টি ফরজ ত্যাগ করে,১৪ ওয়াজীব ত্যাগ,১৯ টি মাসলা অস্বীকার করা ৬০ নামাজের মাসয়ালা।।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।