ঢাকারবিবার , ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইটি বিশ্ব
  3. আজকের ঢাকা
  4. আজকের রাশিফল
  5. আদর্শ সদর
  6. আমাদের পরিবার
  7. আর্ন্তজাতিক
  8. ইসলামী জীবন
  9. উদ্ভাবন
  10. করোনা
  11. কুমিল্লা
  12. কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
  13. কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন
  14. খুলনা
  15. খেলাধুলা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঈমান ভাঙার কারণ ১০ টি!

Edited by_Sakib al Helal
সেপ্টেম্বর ১০, ২০২১ ৬:৩৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আজকের জুমার আলোচনা

আলোচকঃ মাওলানা হাফেজ মোঃ নূর হোসেন

যে ঈমান প্রয়োজনে জ্বলে উঠেনা
যে ঈমান সত্য ন্যায়ের কথা বলেনা
যে ঈমান অন্তরে নাই
মুখে ফুটায় কথার কলি
কি ভাবে তারে বলো ঈমান বলি?।
(মহা সংবিধান আল কুরআন)
১)সূরা নিসা আয়াত, ৪৮,৬০,৬৫
২)সূরা মায়েদা আয়াত ৫১,৭২
৩)সূরা ইউনুস আয়াত ১৮
৪)সূরা তাওবা আয়াত ২৩,৬৫,৬৬
৫)সূরা সাজদা আয়াত, ২২
৬)সূরা যুমার আয়াত ৩
৭)সূরা বাকারা আয়াত ১০২
তাফসীর হিসাবে সহায়ক,তাফহীমূল কুরআন,তাফসীরে মারেফূল কুরআন,ইবনে কাসীর,তাফসীরে কাশশাফ।
(প্রিয় বিপ্লবী বাণী)
১)হযরত আবু যার রাঃ হতে বর্ণিত। রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন কোন ব্যক্তি যদি লা ইলাহা ইল্লাল্লাহুর ঘোষণা দেয় এবং এরই উপর মৃত্যবরণ করে,তবে অবশ্যই সে জান্নাতে প্রবেশ করবে।মুসলিম।
২)হযরত ওমর রাঃ হতে বর্ণিত রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন, তোমরা আমার বিষয়ে তেমন সীমালংঘন করোনা যেমন
খৃষ্টানরা হযরত ঈসা আ সম্বন্ধে করেছে, বরং তোমরা বলবে,মুহাম্মদ সাঃ আল্লাহর বান্দা ও রাসূল।সুনানে দারেমী ২৮২৬।
৩)হযরত আমর বিন আবাসা রাঃ হতে বর্ণিত, আমি রাসূল সাঃ কে জিজ্ঞেস করেছিলাম,ঈমান কি?, জবাবে তিনি বললেন সবর, ধৈর্য ও সহনশীলতা এবং সামাহাত দানশীলতা,নমনীয়তা ও উদারতা হচ্ছে ঈমান।মুসলিম।
৪)হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর রাঃ হতে বর্ণিত, নবী করীম সাঃ ইরশাদ করেছেন, তোমাদের মধ্যে কেহই ঈমানদার হতে পারবেনা, যতক্ষণ না তার কামনা বাসনাকে আমার উপস্থিতাপিত দ্বীনের অধীন করতে না পারবে।শরহুস সুন্নাহ।
(সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও ঈমান ভাঙার কারণ ১০টি)
১) আমাকে যকন কেউ প্রশ্ন করে
কেনো বেঁচে নিলে এই পথ
কেনো ডেকে নিলে বিপদ
জবাবে তখন বলি মৃদু হেসে
যায় চলি বুকে মোর আছে হিম্মত।
২)আল্লাহ পাক বান্দাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ঈমানদার হয় কবরে আসিয়ো, বেঈমান হয়ে আসিয়োনা কবরের আযাব বড়ই ভয়াবহ,,
৩)ঈমান বড়ই দামী হারিয়ে গেলে জাহান্নাম অবধারিত, অক্সিজেন ছাড়া যেমন বাঁচা যায়না ঠিক তেমন ঈমান ছাড়াও বাঁচা যায়না,,,
৪)আল্লাহ পাক বলেন বান্দা তোমার নাম নিশানাহ
বংশ মর্যাদা পরিচয় ছেলে মেয়ে বাবা মা স্ত্রী আত্মীয় স্বজন কেউ ছিলোনা! একটু ভাবো কে ছিলো? যে ছিল তার উপর জীবন স্বপে দাও,,
৫)আল্লাহ পাকের সাথে যারাই ধুকামি করেছে তাদের ভয়াবহ পরিণতি হয়েছে, তাদের বংশ পরিচয় সব ধ্বংস করে দিয়েছে,,
৬)ঈমান ৭ আসমান ৭ জমীন থেকেও বড় দামী, সোনা দানা রুপা হিরা পান্না মানিক সকল সম্পদের চেয়ে ও দামী ঈমান,,,
৭)জীবন দিতে রাজি ঈমান দিবোনা! সমস্ত সম্পদ দুনিয়া ছাড়তে রাজি তার পরেও ঈমান ছাড়তে রাজি নয়,,,
৮),রাসূল সাঃ সাথে মক্কার বেঈমানেরা ৫৭০ থেকে ৬১০ সাল পর্যন্ত খুব সুন্দর মিষ্টিভাষী চলাফিরা কথাবার্তা বলেছেন, যখন সত্য এসেছে ঈমানের কথা বলা শুরু করলেন তখন শুরু করলো মক্কার গডফাদার শয়তানরা রাসূল সাঃ উপর অকথ্য নির্যাতন নিপড়ন, জীবন যৌবন ঘরবাড়ি দেশত্যাগ সমস্ত সম্পদ সব কিছু কেড়ে নিলো ইসলামের বড় দুষমন বেঈমানেরা,,,
৯)রাসূল সাঃ সাথে ঈমানের দাবী করে বড় বেঈমানির পরিচয় দিলো শত মুনাফিক উল্লেখযোগ্য হল আব্দুল্লাহ ইবনে উবায়্যা,,,
১০)রাসূল সাঃ প্রিয়সাথীগন বন্ধুগন জীবন দিলো তাও বড় দামী ঈমান দেয়নি, আল্লাহ রাসূল সাঃ শুক্রদের হাতে, লক্ষ লক্ষ সাহাবী শত নির্যাতন সহ্যকরেছেন যেমন আবু বকর,উমর,উসমান আলী রাঃ ও জান্নাতের সংবাদপ্রাপ্ত ১০ জন সাহাবী,,,
১১)জলন্ত কয়লার উপর শুয়ে দিল তার পরে ঈমাম ছাড়িননি প্রিয়সাহাবী হযরত খাব্বব রাঃ শেষ বয়সে দেখা গেলো তার শরীলে বড় বড় গর্ত হয়ে গেলো সে অকথ্য নির্যাতনের,,,
১২)উত্তাপ্ত বালির উপর শুয়ে দিলো হাবশী গোলাম ঈমান না ছাড়ার করণে প্রথম মুয়াজ্জিন হযরত বেলাল রাঃ,,
১৩),ঈমানের উপরে যুগে যুগে যারাই অটুট ছিল তারা স্টিলরোলারের চেয়ে অনেক বেশি নির্যাতন বাড়ি ঘর দেশ সব হারিয়েছেন জীবন যৌবন জেল জুলুম যেমন ইমাম আবু হানীফা রহ জেলখানাতে দীর্ঘদিন আটকে রেখে তার মায়ের সামনে নাম নির্যাতন বিবস্ত্র করেছেন,আহমদ বিন হাম্বল রহ কে দীর্ঘ ২৮ দিন পর্যন্ত টানা নির্যাতন করেছে ইমাম মালিক রহ ফাসির কাটগড়ায় যেতে হয়েছে তার পরেও ঈমান ছাড়েনি,,,
১৪)রাসূল সাঃ বলেছেন কিয়ামত পর্যন্ত ঈমানের দীপ্তি জলতে থাকবে, শত নির্যাতন আসলেও,,,
১৫),এতো বড় ঈমান এতো বড় নিয়ামত না বুঝে যেনে শুনে যারাই হারাবে তারাই জাহান্নামে যাবে,,
১৬)ঈমান ভেঙে যায় যে কারণে যেনেনি সতর্ক থাকি জাহান্নামকে ভয় করি,, ১/আল্লাহর সাথে শিরক করা ২/আল্লাহ ও বান্দার মাঝে কাউকে মধ্যস্থতা বানানো ৩/মুশরিক কাফেরদের কাফের মনে না করা ৪/রাসূল সাঃ সিন্ধান্ত ও ফয়সালাকে না মানা ৫/মুহাম্মদ সাঃ আনিত বিধানকে অপছন্দ করা ৬/দ্বীনের কোন বিধানকে হাসি তামাসা বানানো ৭/জাদু টোনা করা ৮/ঈমানদারদের বিরুদ্ধে কাফেরদেরকে সহায়তা সহযোগিতা করা ৯/কোন ব্যক্তিকে দ্বীন শরিয়াতের উর্ধ্বে মনে করা ১০/দ্বীন থেকে ফিরে যাওয়া মুখফিরানো।

১৭)অযু ভাঙার কারণ ৭ টি, নামাজ ভাঙার কারণ ১৯, ঠিক তেমনি ভাবে ঈমান ভাঙার কারণ, ১০,,
১৮) ৩ টি কাজ করলে আল্লাহ পাক রহমত তুলে নেন ১/নিয়ামতের শুকরিয়া আদায় না করা ২/মিথ্যা কথা বললে ৩/৫ ওয়াক্ত নামাজ না পড়া,,
১৯)কথা বলার নাম ঈমান আবার কথা বলার নাম বেঈমান,ঈমানদার ত্যাগী হয় চিন্তাশীল হয় অপ্রয়োজনীয় কথা বলেনা ভোগবিলাসীতা হয়েনা,
২০) যা আছে মোর সব নিয়ে যাও
ঈমান আমার নিয়োনা
ঈমান ছাড়া ওগো প্রভূ
মরণ আমায় দিয়োনা না।
দ্বীন প্রচারের স্বার্থে দয়া করে ভালোবেসে শেয়ার করুন, ভূল দেখলে ইনবক্সে করুন।
সকল আলোচনা পেতে সাথে থাকুন
H MD ALOCHONA।
সফর ২ তাঃ হিজরী ১৪৪৩
ভাদ্র ২৬তাঃ সন ১৪২৮
সেপ্টেম্বর ১০ তাঃ সাল ২০২১।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।