ঢাকাবুধবার , ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইটি বিশ্ব
  3. আজকের ঢাকা
  4. আজকের রাশিফল
  5. আদর্শ সদর
  6. আমাদের পরিবার
  7. আর্ন্তজাতিক
  8. ইসলামী জীবন
  9. উদ্ভাবন
  10. করোনা
  11. কুমিল্লা
  12. কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
  13. কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন
  14. খুলনা
  15. খেলাধুলা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পাপকারীর ভয়াবহ পরিণতি!

Edited by_Sakib al Helal
সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ ৬:৩৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আজকের জুমার আলোচনা।

আলোচকঃ হাফেজ মাওঃ মোঃ নূর হোসেন 

রিযিক যেমন বন্টন হয়
বন্টন হয় চরিত্র
আল্লাহ তায়ালার মদদত ছাড়া
হয়নাতো কেউ পবিত্র।
কুরআনের আয়াত সমূহ,,
১)সূরা বাকারা আয়াত ১৬,২৭,২৮
২)সূরা হজ্জ আয়াত ৩০
৩)সূরা সাজ্জাদা আয়াত ১৩
৪)সূরা দুখান আয়াত ১০,১১,২৯
৫)সূরা মুমাহাম্মাদ আয়াত ৩৮
৬)সূরা মুমতাহিনা আয়াত ১৪
তাফসীরের সহায়তানেন, তাফসীরে জালালাইন,
তাফসীরে ইবনে কাসীর,মারেফুল কুরআন,নুরুল কুরআন,তাফহীমূল কুরআন।

প্রিয়নবীর বিপ্লবী উপদেশ,,
১)হযরত আবু হুরায়রা রাঃ হতে বর্ণিত রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন, বান্দা যখন কোন একটি গোনাহর কাজ করে,তখন তার অন্তরে কালো দাগ পড়ে যায়।অতপর যদি সে তার কৃতকর্মের জন্য( লজ্জিত ও অনুতপ্ত) না হয়ে বরং পুনরায় গোনাহে লিপ্ত হয় তাহলে সেই দাগ আরো গাঢ় আকার ধারণ করে এবং অন্তকরণকে মরিচাযুক্ত করে ফেলে।আর অন্তরের এ মরিচাযুক্ত অবস্থাটিকেই আল্লাহ সূরা মুতাফফিফীনে এ ভাবে বলেছেন যে, তাদের পাপের কারণে তাদের অন্তরে মরিচা গাড় হয় গেছে।সুনানে তিরমিযী ৩৩৩৪।
(হযরত জুনায়েদ বাগদাদী রাহ বলেন যেভাবে অসর্তকতার দরুনে মানুষের শরীরে রোগের সৃষ্টি হয়,তেমনিভাবে প্রবৃত্তির প্ররোচনার অনুকরণের দ্বারা মানুষের অন্তরেও রোগের সৃষ্টি হয়ে থাকে)
২)রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন হারাম ভক্ষণকারীর শরীল কখনো জান্নাতে প্রবেশ করিবেন।বুখারী। তেমনিভাবে পাপী যারা তারাও তাওবা করে সৎপথে না আসলে তারাও আল্লাহর জান্নাতে প্রবেশ করিবেনা,,,
৩)হযরত আনাস ইবনে মালিক রাঃ হতে বর্ণিত। তিনি বলেন,রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ প্রত্যেক মুমিনের জন্যই (আকাশে) দুটি দরজা রয়েছে। একটি দরজা দিয়ে তার আমল উত্থিত হয় আরেকটি দরজা দিয়ে তার রিযিক অবতীর্ণ হয়।এই মুমিন যখন মারা যায় তখন দুটো দরজা তার জন্য কাঁদে।আল্লাহর কালামে এদিকেই ইঙ্গিত করা হয়েছে। তিরমিযী ৩২৫৫।
৪)হযরত ইবনে উমর রাঃ থেকে বর্ণিত যে, মক্কা বিজয়ের দিন রাসূল সাঃ লোকদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন বললেনঃ হে লোক সকল! আল্লাহ তায়ালা জাহিলী যুগের অন্ধ অহমিকা এবং পিতৃপুরুষদের নিয়ে গর্ব করার প্রথা ধুলিসাৎ করে দিয়েছেন। মানুষ হল দু ধরনের।এক প্রকার হল সৎ,পরহেযগার এবং আল্লাহ নিকট মর্যাদাবান।আরেক প্রকার হল অসৎ,পাপীরা,বদগাররা আল্লাহ পাকের নিকট সবচায়তে বেশি ঘৃণিত নিকৃষ্ট। তিরমিযী ৩২৭০।

ভয়ংকর ইতিহাস!
১) কঠিন হাশরের দিনে রেখোগো পাশে
পাপের ভারে নুয়ে গেছে মন তাই কেঁদে মরে
জান্নাতি ফুল দিয়োগো আমায়
আগুনে ফেলে দিয়োনা।
২)পাপ কাজ প্রথমে করতে বলতে খেতে চলতে পড়তে পরিধান করতে খুব মজা তার পর দুনিয়াও আখেরাতের সাজা!,,,
৩)ভেবে চিন্তে কর কাজ, করে কাজ ভেবোনা, ভেবে চিন্তে বল কথা, কথা বলে ভেবোনা ভুলের কারণে ধ্বংস তোমার অনিবার্য,,
৪)পাপকারী মানুষটি আল্লাহর নিকট ঘৃণিত, রাসূল সাঃ নিকট ঘৃণিত, সমাজের নিকট ঘৃণিত, আসমান, জমীনের নিকট ঘৃণিত, প্রাণীকুলের কাছেও ঘৃণিত!,,
৫)পাপের শরীল,হারাম ভক্ষণকারীর শরীল আল্লহার জান্নাত প্রবেশ করিবেনা,,,
৬)পাপীরা দুনিয়ার বুঝা সকল সৎমানুষের ঘৃণার পাত্র, সকল প্রাণীর অভিশাপের পাত্র, জাহান্নামের বন্ধু,,,
৬)এরাই সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত,যারা অশান্তি করে,যিনা করে,মিথ্যা কথা বলে,সুদ,ঘোষখায়,ইভটিজিং করে,,,,
৭)যারা পাপ কাজ করে তারা হল আল্লাহর জান্নাতের শুক্র আর জাহান্নামের বন্ধু। পরকাল বিশ্বাসীরা আল্লাহ ওয়ালা হয় আর দুনিয়া বিশ্বাসীরা পাপী হয়,,
৮)যাদের হৃদয় আছে আল্লাহর ভয়
তারা কভু পথ ভূলে যায়না
আল্লাহর প্রেম ছাড়া এই দুনিয়ায়
কার কাছে কোন কিছু চায়না।
৯)পাপাচার কারীর দুনিয়া ধ্বংস, পরকাল ধ্বংস, জীবন যৌবন,পরিবারও ধ্বংস, সারাক্ষণ অভিশপ্ত হয় জীবন যাপন করে,যতক্ষণ পর্যন্ত তাওবা না করে ফিরে আসবে,,,
১০)সে ব্যক্তিই অভিশপ্ত যে মরে যায় অথচ তার খারাপ কাজ গুলো পৃথিবীতে রয় যায়,,,
১১)লোভে পাপ পাপে ধ্বংস যেমন অধিক কিছু লাভ করার ভাসনা অধিক কিছু পাওয়ার চিন্তা যা দিন দিন পাপের রাস্তায় হাটায় যেমন,ইহসান কম্পানি,ইভালি কম্পানি,ডেস্টেনি কম্পানি,যুবগ কম্পানি,আপনজন৷ প্রিয়জন কম্পানি,নাম না জানা আরো কত শত কম্পানি লোভ আর সুদী কারবারি করে করে মানুষকে পাপের দিকে হাটায়,
১২) আমি ক্লান্ত যখন পাপের ভারে
ডুব দিয়ে রয় ঘোর আঁধারে
অন্তরে হয় ক্ষত অন্তরে হয় ক্ষত,,
১৩)যদি জীবনের ভাজে ভাজে
লালসারকীট করে ভীট
যদি অশুভের বাহুবলে ভয় করি নত শির,
১৪)পৃথিবীতে যত বড় বড় বিপদ আপদ মসিবত আসে তা মানুষের নিজের হাতের কামায়, অধিক পাপের ফলে আসমানি আজাব গজব আর জমীনের ভয়াবহতা শুরু হয়ে যায়,যেমন ঘুর্ণিঝড়, সাইক্লোন,ভুমিকম্প আরো অনেক,,,
১৫)আল্লাহ পাক বান্দাকে উদ্দেশ্য করে বলেন বান্দার যত বিপদ মসিবত আযাব,গজব,অশান্তি,আসমানী,জমীনি,পরিবারে,সমাজে,শারীলিক মানসিক সব কিছু বান্দার পাপের কারণে হয়,,,
১৬)পৃথিবীতে যারাই অবাধ্য হয়েছে পাপের রাস্তায় হেটেছে আল্লাহ পাক তাদেরকে কঠিন শাস্তির সম্মুখীন করেছেন তাদের নাম নিশানা পর্যন্ত ধ্বংস করে দিয়েছেন যেমন,বনী ইসরায়েল জাতি, আদ জাতি,সামূদ জাতি,এই ভাবে অসংখ্য জাতিকে আল্লহর অবাধ্যতা কারণে আল্লাহ পাক ভয়াবহ আযাব গজব দিয়ে ধ্বংস করে দিয়েছেন,,
১৭)আজকের জাতি চেয়েও বড় বুদ্ধিমান সাহসী জাতি ছিলো পূর্বের জাতিরা তারা ধ্বংস হয়েছে শুধুমাত্র তাদের পাপের কারণে,কোন জাতি কি কারণে ধ্বংস হল,নূহ আঃ জাতি আল্লাহ পাকের দাওয়াতকে অস্বীকার করার কারণে,লূত আঃ জাতি যিনা বেভিচার করার কারণে,মূসা আঃ জাতিরা জুলুম অত্যাচার করার কারণে,বনী ইসরায়েল জাতিরা ১ দিনে ৭০ জন পয়গম্বর হত্যাকরেছে আল্লাহ সাথে বাড়াবাড়ির কারণে এবং ৫৭০ সালে আবহার জাতি হাতিয়ালী বাহিনী আল্লাহর ঘরকে বায়তুল্লাহ ধ্বংস করতে এসে নিজেরায় চিরতরে ধ্বংস হয় গেলো,,আল্লাহর হাবীব রাসূল আকরাম সাঃ বলেন আসমানের দুটি দরজা আছে ঐ দুটি দরজা ঈমানদারের জন্য দোয়া করে আর কাঁদে বেমাঈমানের জন্য বদদোয়া করে,,
১৮)অসংখ্য সাহাবীরা ধ্বংস হওয়া জাতি গুলোর পাপ কাজ গুলো থেকে আল্লাহ পাকের কাছে পানাহ চাইতেন,,,
১৯)পাপের কারণে আল্লাহ পাক রিযিককে সংকীর্ণ করে দেন,হায়াত কমিয়ে দেন,শারীল মানসিক যন্ত্রনা বাড়িয়ে দেন,দিন দিন ধ্বংসের ধারপ্রান্থে পৌছে

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।