ঢাকাসোমবার , ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইটি বিশ্ব
  3. আজকের ঢাকা
  4. আজকের রাশিফল
  5. আদর্শ সদর
  6. আমাদের পরিবার
  7. আর্ন্তজাতিক
  8. ইসলামী জীবন
  9. উদ্ভাবন
  10. করোনা
  11. কুমিল্লা
  12. কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
  13. কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন
  14. খুলনা
  15. খেলাধুলা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হিংসা কারীর ভয়াবহ পরিণাম

Edited by_Sakib al Helal
অক্টোবর ৮, ২০২১ ৫:১২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আজকের জুম্মার আলোচনাঃ

আলোচকঃ

হাফেজ মাওঃ মোঃ নূর হোসেন, ফেনী

দুনিয়ার আগুনে হাত রেখে দেখো
পূনরায় পাপ তুমি করার আগে
অনুভব করে দেখ আগুনের তাপ
ঝলসানো যন্ত্রণা কেমন লাগে।

মহাসংবিধানের আয়াত সমূহ,,
১,সূরা বাকারা আয়াত ৮১,৮২
২,সূরা নিসা আয়াত ৬৭,৬৮,৬৯,১২৩
৩,সূরা মূলুক আয়াত ২
৪,সূরা ফালাক আয়াত ১-৫
৫,সূরা নিসা আয়াত ৫৬
তাফসীর মাধ্যমে উত্তম সহায়তানেন।তাফসীরে কাসীর,তাফসীরে তাফহীম,তাফসীরে নুরুল কুরআন,তাফসীরে জালালাইন,কাশশাফী।

বিল্পবী উপদেশ,,
১,হযরত আনাস রাঃ থেকে বর্ণিত রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করছেন, তোমরা পারস্পরিক হিংসা বিদ্বেষ পোষণ করো না,পরস্পরের প্রতি মুখ ফিরিয়ে রেখো না,বরং আল্লাহর বান্দা ও পরস্পর ভাই ভাই হয়ে যাও।আর কোন মুসলমানের পক্ষে অন্য মুসলমান ভাইয়ের প্রতি তিন দিনের বেশী সময় পর্যন্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে রাখা জায়েয নয়।মুসলিম ২য় খন্ড।
২,রাসূল সাঃ এরশাদ করেন তোমরা হিংসা -বিদ্বেষ থেকে বেঁচে থাক।কারণ হিংসা সৎকর্ম সমূহ তেমনিভাবে খেয়ে ফেলে যেমন করে আগুন খেয়ে ফেলে কাঠ।আবু দাউদ।
৩,হযরত আবু হুরায়রা রাঃ হতে বর্ণিত হিংসা হতে দূরে থাক,কেননা হিংসা নেককী ধ্বংস করে দেয়,যেমন আগুন শুকনা কাঠকে জালিয়ে পুড়িয়ে ধ্বংস করে দেয়। মিশকাত ৪৬৮।
৪,হযরত আবু হুরায়রা রাঃ হতে বর্ণিত যেই ব্যক্তি মুসলমানের দোষ গোপন রাখবে আল্লাহ পাক দুনিয়া ও আখেরাতে তার দোষ গোপন রাখবেন।মিশকাত ৩২।
৫,রাসূল সাঃ এরশাদ করেন দোয়া, হে আল্লাহ! আমি আপনার আশ্রয় চাই,আমার নফসের অনিষ্ট থেকে,শয়তানের অনিষ্ট থেকে এবং শিরক থেকেও আশ্রয় চাই।মুসনাদ আহমেদ ৪/২৮।
৬, হযরত আবু হুরায়রা রাঃ হতে বর্ণিত রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন সূরা নিসার ১২৩ নং আয়াত যখন নাযিল হল” যে কেউ মন্দ কাজ করবে,সে তার শাস্তি পাবে” যে কেউ কোন অসৎকাজ করবে,সেজন্য তাকে শাস্তি দেয়া হবে।আয়াতটি যখন অবতীর্ণ হল,তখন আমরা খুব দুঃখিত ও চিন্তাযুক্ত হয়ে পড়লাম এবং রাসূল সাঃ এর কাছে আরয করলাম যে,এ আয়াতটি তো কোন কিছুই ছাড়েনি।সামন্য মন্দ কাজ হলেও তার সাজা দেয়া হবে।রাসূল সাঃ বললেন চিন্তা করো না,সাধ্যমত কাজ করে যাও।কেননা,(উল্লেখিত শাস্তি যে জাহান্নামেই হবে,তা জরুরী নয়) তোমরা দুনিয়াতে যে কোন কষ্ট অথবা বিপদাপদে পড় তাতে তোমাদের গোনাহর কাফফারা এবং মন্দ কাজের শাস্তি হয়ে থাকে।এমন কি যদি কারও পায়ে কাঁটা ফুটে, তাও গোনাহর কাফফারা বৈ নয়।তিরমিযী ৩০৩৮।

ভয়াবহ সংক্ষিপ্ত ইতিহাস।
১,হিংসা করে নেই আজও অনুশোচনা
পাপ করে গুনাহ সেতো মনে হয়না
ইবাদাতে নেই কোন খেয়াল তোমার
স্বাভাবিক দিন যায় বেখেয়ালে ক্ষনে।
২,হিংসুক ও হিংসা।আর হিংসার কারণেই রাসূল সাঃ এর উপর যাদু করা হয়েছিল। ইয়াহুদী ও মুনাফিকরা মুসলমানদের উন্নতি দেখে হিংসার অনলে দগ্ধ হত।তারা সম্মুখ যুদ্ধে জয়লাভ করতে না পেরে যাদুর মাধ্যমে হিংসার দাবানলে নির্বাপিত করার প্রয়াস পায়।
৩,রাসূল সাঃ এর প্রতি হিংসা পোষণকারীর সংখ্যা জগতে অনেক।এই কারণেও বিশেষভাবে হিংসা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করতো
৪,হিংসাটা পৃথিবীতে প্রথমে করেন ইবলীস হযরত আদম আঃ এর প্রতি এবং পৃথিবীতে আদম আঃ পুত্র কাবিল নিজ ভাই হাবিলের প্রতি হিংসা করেছে। কুরতুবী।
৫,হিংসা দুই ধরণের ১, হাসাদ অর্থ কারও নেয়ামত ও সুখ দেখে দগ্ধ হওয়া ও তার অবসান কামনা করা।এই হিংসা করা হারাম ও মহাপাপ।
২,গবতুন অর্থ কারও নেয়ামত ও সুখ দেখে নিজের জন্যে তদ্রূপ নেয়ামত ও সুখ কামনা করা।এটা যায়েজ বরং উত্তম।
৬, মুসলিমের ব্যাখ্যায় ইমাম নববী রহঃ হাসাদ বা ঈর্ষা সম্পর্কে বলেন অন্যের প্রাপ্ত নেয়ামতের অপসারণ কামনা করার নামই হলো হাসাদ বা ঈর্ষা। এটা সম্পূর্ণ হারাম।
৭,হযরত মুয়ায রাঃ বলেন জাহান্নামীদের শরীলের চামড়াগুলো যখন জ্বলে পুড়ে যাবে,তখন সে গুলো পাল্টে দেয়া হবে এবং এ কাজটি এত দ্রুতগতিতে সম্পাদিত হবে যে,এক মুহুর্তে শতবার চামড়া পাল্টানো যাবে।
৮,হযরত হাসান বসরী রহঃ বলেন, আগুন তাদের চামড়া একদিনে সত্তর হাজার বার খাবে।চামড়া খেয়ে ফেললে আবার নতুন চামড়া দেয়া হবে আসাদন করার জন্য।
৯,হিংসাকারী ব্যক্তি খুবেই জঘন্য নিজেও জলে অপর কেউ জ্বালায়, ভাইরাসের মত যন্ত্রণা দেয়,,
১০,হিংসা করা সম্পূর্ণ হারাম ঈর্ষা করা হালাল সম্পদের লোভে করা, আমলের লোভে ভালো কাজ করা,,,
১১,হিংসাকারী,চোগলকারী,গীবতকারী,মিথ্যাকারী,যিনাকারী,জুলুমকারী,ফিতনাকারী,এই সমস্ত চরিত্র মানুষ গুলোর আমল আল্লাহ পাক ধ্বংস করে দেয়,,
১২,দুশ্চরিত্রা, মূর্খতা,অদক্ষতা,এই সমস্ত মানুষ গুলো থেকে বাঁচার পানাহ চাও আল্লাহর কাছে,,
১৩,রাসূল সাঃ বলেন যে সমস্ত মানুষ অসৎকাজ করবে,মানুষকে হিংসা করবে,সে তার ভয়াবহ শাস্তি পাবে,,
১৪,হযরত বুরায়দা রাঃ হতে বর্ণিত রাসূল সাঃ বলেন যে ব্যক্তি কোন সৎকাজে অপরকে উদ্ভুদ্ধ করে,সেও ততটুকু সওয়াব পায় যতটুকু সৎকাজ করে,,
১৫,হিংসা নামক ভয়ানক ব্যাধি মানুষের অন্তরকে জ্বালায়,পরিবারকে, সমাজ,দেশকেও,,
১৬,হিংসা কারে শয়তান, খারাপ,বদগার,অসৎমানুষ গুলো,,
১৭,সকল নবী রাসূলদেরকে শত কষ্ট যন্ত্রণা দিয়েছিলো হিংসাকারী মানুষ রুপি শয়তানরা,,
১৮,রাসূল সাঃ কে হিংসা করে মক্কার মানুষরুপি হায়নারা ১ বছর ঘাটে শুয়ে রেখেছিলো কুমন্ত্রণা করে,,
১৯,রাসূল সাঃ কে হিংসা করে মক্কার ১১ জন গড় ফাদার মানুষরুপি শয়তান গুলো,তখন আল্লাহ পাক জিবরাইল সহযোগিতায় মদীনায় হিঃ করান,
২০,হিংসা করা মানুষ গুলো সবচেয়ে বেশি ভয়ংকর
ছড়িয়ে দাও ভালোবাসা প্রাণ থেকে প্রাণে,,
২১,হিংসা করে অসৎ মানুষ গুলো সহজ সরল মানুষের প্রতি,পথে ঘাটে যেখানো সেখানে অসৎ মানুষের জ্বালা নিভাবার জন্যে,,
২২,আল্লাহ পাক বলেন হিংসা করোনা ঈর্ষা কর দুনিয়ার দালান কোঠায় মেতে থেকোনা প্রতিযোগীতায় অমনুযোগি হয়োনা আমলের প্রতি মনোযোগি হও পরকালের প্রতিযোগিতা করো,,,
২৩,হিংসা কারীর ধ্বংস অনিবার্য আর ঈর্ষা কারীর সফলতা অনিবার্য হবেই,,
২৪, আল্লাহ পাক সূরা ফালাক ৫ টি আয়াত শিখিয়েছেন হিংসুকের হিংসা থেকে আশ্রয় পাবার জন্য আল্লাহ পাক আমাদের মন থেকে দিল থেকে সমস্ত খারাফি কুমন্ত্রণা হিংসা যেন দূর করে দেয়,

”কোন ভূল দেখলে দয়া করে ক্ষমার দৃষ্টি দেখে
জানাবেন”
সকল আলোচনা পেতে লিংক ইউটিবে
H MD ALOCHONA

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।